শামীম

শুধু চিঠি চালাচালি নয়; পুঁজিবাজারের উন্নয়নে কার্যকর সহযোগিতা করুন

পুঁজিবাজার স্থিতিশীল তহবিল বা ক্যাপিটাল মার্কেট স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ড (সিএমএসএফ) এ ব্যাংকগুলো কত টাকা বা অবণ্টিত ও দাবিহীন ডিভিডেন্ড দিয়েছে- তা জানতে ব্যাংকগুলোকে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

সম্প্রতি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর কাছে এ সংক্রান্ত তথ্য চেয়ে পাঠানো চিঠিতে আগামী ১৮ জানুয়ারির মধ্যে এ বিষয়ে তথ্য পাঠাতে ব্যাংকগুলোকে বলা হয়েছে।

 

এরআগেও বিভিন্ন সময়ে এ ধরনের একাধিক চিঠি চালাচালির খবর গণমাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে। পুঁজিবাজার ভাল থাকলেও এ জাতীয় একটি চিঠির কারণে তা আবার মন্দাবস্থায় পতিত হয়। অন্যদিকে, বাজার নিম্নমুখী থাকলেও কোনো না কোনো বিষয়কে সামনে রেখে একটি চিঠি/ডিরেক্টিভস দিয়ে তা আবার টেনে তোলার চেষ্ঠা করা হয়। বিভিন্ন খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থাসমূহ এক্ষত্রে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা পালন করে। কিন্তু এটি কোনো স্থিতিশীল কিংবা উদীয়মান অর্থনীতির বৈশিষ্ট্য হওয়া উচিত নয়।

 

একটি দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের অন্যতম প্রতিচ্ছবি হচ্ছে দেশটির শেয়ারবাজার। এ বাজারের উন্নয়ন পেছেনে রেখে পৃথিবীর কোনো দেশ উন্নত দেশে পরিণত হয়েছে- তার নমুনা খুব বেশি খুঁজে পাওয়া যাবে না- বাংলাদেশেও তা সম্ভব নয়। তাই সরকারের ভিশন-মিশনকে বাস্তবে রূপ দিতে হলে অবশ্যই শেয়ারবাজারের উন্নয়ন লাগবে। মুখে মুখে এ বাজারের উন্নয়নে সকল সহযোগিতার কথা বলে বাস্তবে উল্টো কাজ করলে- তা কখনোই অর্থনীতির জন্য মঙ্গল বয়ে আনবে না। সুতরাং লোক দেখানো চিঠি চালাচালির এ সংস্কৃতি পরিহার করে বাস্তবিক অর্থে পুঁজিবাজারের উন্নয়নে সহযোগিতা করুন।

 

বিনিয়োগবার্তা/এসএএম//

 


Comment As:

Comment (0)