ইনফো-সরকার ৩য় পর্যায় প্রকল্পে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

দ্রুতগতির ইন্টারনেট পাচ্ছে ১০ কোটি মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ‘ইনফো-সরকার ৩য় পর্যায়’ প্রকল্প থেকে বিগত ৪ বছর ধরে উদ্যোক্তাদের বিনামূল্যে ৫ এমবিপিএস ব্যান্ডউইথ পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে। এর ফলে গ্রামীণ জনগণকে প্রায় ৮০ কোটি সরকারি পরিষেবা প্রদান করা হয়েছে। 

তিনি বলেন, ইনফো-সরকার ফেজ-৩ নেটওয়ার্ক থেকে সারা দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ভূমি অফিস এবং অন্যান্য সরকারি অফিসসহ গ্রামপর্যায়ে এক লাখ ৯ হাজার ২৪৪টি সরকারি প্রতিষ্ঠানে ব্রডব্যান্ড সংযোগ দেওয়া হচ্ছে। প্রকল্প এলাকায় ফ্রিল্যান্সিংয়ের মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। সব মিলিয়ে দেশের ৬০ শতাংশ ভৌগোলিক এলাকার প্রায় ১০ কোটি মানুষ উচ্চগতির ইন্টারনেট সুবিধার আওতায় এসেছে। 

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে ‘জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অবকাঠামো উন্নয়ন (ইনফো-সরকার ৩য় পর্যায়)’ শীর্ষক প্রকল্পের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) থেকে উদ্যোক্তারা দুই ধরনের ডিজিটাল সেবা দিচ্ছেন। সেগুলোর মধ্যে একটি হলো- পাবলিক সার্ভিস (পর্চা তোলা, পাসপোর্ট, এনআইডি, মিউটেশন, জন্ম ও মৃত সনদ আবেদন, অনলাইন ট্যাক্স রিটার্ন) ইত্যাদি। অন্যটি হলো- বেসরকারি সেবা (এজেন্ট ব্যাংকিং, মোবাইল ব্যাংকিং, ই-কমার্স, রেমিট্যান্স বিতরণ, পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন, ফটোকপি, কম্পিউটার কম্পোজ) ইত্যাদি। এসব সেবা প্রায় ২৬০০ ইউনিয়নের ডিজিটাল সেন্টার থেকে দেওয়া হয়। 

অনুষ্ঠানের সভাপতির বক্তব্যে জুনাইদ আহমেদ পলক তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের বর্তমান অগ্রগতি তুলে ধরেন। তিনি বলেন, গ্রামবাসীকে যদি বিদ্যুৎ, ইন্টারনেট, আধুনিক সড়ক যোগাযোগ, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবা দিতে পারি তাহলে গ্রাম থেকে শহরে স্থানান্তর বা স্থানান্তরিত হওয়ার প্রয়োজন হবে না। আমাদের ৫টি মৌলিক চাহিদা যদি তারা পান তবে তারা তাদের গ্রামে থাকতেই খুশি হবেন। 

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ (পিপিপি) কর্তৃপক্ষের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. মো. মুশফিকুর রহমান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ইনফো-সরকার প্রকল্পের পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ।

বিনিয়োগবার্তা/এমআর//


Comment As:

Comment (0)