Responsive image

এমবাপের হ্যাটট্রিকে নিজ মাঠে কুপোকাত বার্সেলোনা

বিনিয়োগবার্তা ডেস্ক, ঢাকা: প্রথমে গোল হজম করেও দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ালো ফরাসি ফুটবল ক্লাব পিএসজি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে কিলিয়ান এমবাপের অসাধারণ হ্যাটট্রিকে বার্সেলোনাকে তাদেরই মাঠে উড়িয়ে দিলো তারা।

ক্যাম্প ন্যুয়ে মঙ্গলবার রাতে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে কাতালানদের ৪-১ গোলে হারিয়েছে পিএসজি। প্রথমে লিওনেল মেসির গোলে এগিয়ে গেলেও প্রতিপক্ষের আক্রমণের তোপে ছন্দ ধরে রাখতে পারেনি বার্সেলোনা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে এমবাপের পারফরম্যান্স নিয়ে সমালোচনা ছিল ঢের। সব হতাশা যেন এক ম্যাচেই ঝেড়ে ফেললেন তিনি। গতিতে প্রতিপক্ষের রক্ষণ কাঁপিয়ে উপহার দিলেন স্মরণীয় এক জয়।

২৭তম মিনিটে মেসির সফল স্পট কিকে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। পাল্টা আক্রমণে ডি-বক্সে ফ্রেংকি ডি ইয়ং পেছন থেকে ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি দেন রেফারি।

চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এটি মেসির চতুর্থ গোল। চারটিই হয়েছে পেনাল্টি থেকে। মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের গোল হলো ২০টি।

পিছিয়ে পড়েও তেতে ওঠে পিএসজি। একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে তারা। চাপ ধরে রেখে পাঁচ মিনিট পর গোলও পেয়ে যায় সফরকারীরা। বক্সের ছয় গজ বাইরে থেকে জোরালো শটে টের স্টেগেনকে পরাস্ত করেন এমবাপে।

দ্বিতীয়ার্ধের চাপ ধরে রেখে ৬৫তম মিনিটে এগিয়ে যায় পিএসজি। ডান দিকের বাইলাইনের কাছ থেকে আলেস্সান্দ্রো ফ্লোরেন্সির ক্রস ঠেকাতে পারেননি টের স্টেগেন, পেছনে ছুটে আসা পিকে চেষ্টা করেন, কিন্তু তার পায়ে লেগে বল চলে যায় এমবাপের কাছে। জোরালো শটে জালে বল পাঠান তিনি।

৭০তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে লেয়ান্দ্রো পারেদেসের দারুণ ফ্রি-কিকে গোলমুখ থেকে কোনাকুনি হেডে টের স্টেগেনকে পরাস্ত করেন ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড কিন।

আর ৮৫তম মিনিটে পাল্টা-আক্রমণে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন এমবাপে। ইউলিয়ান ড্রাক্সলারের পাস পেয়ে ডি-বক্সে ঢুকে কোনাকুনি শটে বল জালে জড়ান বিশ্বকাপজয়ী ফরোয়ার্ড।

এত বড় ব্যবধানে হারের পর ফিরতি পর্বে প্রতিপক্ষের মাঠে ঘুরে দাঁড়ানো আপাত দৃষ্টিতে ভীষণ কঠিন। অসম্ভব প্রায়। সেই চ্যালেঞ্জে আগামী ১০ মার্চ পিএসজি মাঠে নামবে রোনাল্ড কুমানের দল।

(ডিএফই/১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১)

Short URL: https://biniyougbarta.com/?p=137716

সর্বশেষ খবর