Responsive image

কস্ট অডিট বাস্তবায়নে দ্রুত উদ্যোগ নেওয়ার আশ্বাস

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিনিয়োগবার্তা: কস্ট অডিট বাস্তবায়নে দ্রুত উদ্যোগ নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বাণিজ্য সচিব ড. মোঃ জাফর উদ্দিন।

গতকাল সোমবার (১৬ নভেম্বর ২০২০) ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি) এর আয়োজনে “টিট্রমেন্ট অব ভ্যারিয়াস আইটেমস অব কস্ট ইন লাইট অব দ্য কোভিড-১৯’শিরোনামে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আশ্বাস দেন তিনি।

আইসিএমএবি রুহুল কুদ্দুস অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাণিজ্য সচিব ড. মোঃ জাফর উদ্দিন এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। সাফা ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং আইসিএমএবির সাবেক প্রেসিডেন্ট এ কে এম দেলোয়ার হোসেন এফসিএমএ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশ নেন।

প্রধান অতিথি ড. মোঃ জাফর উদ্দিন বলেন, স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতা নিশ্চিত করে বলে কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টিং একটি মহৎ পেশা। করোনাকালীন সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাহসী উদ্যোগ এবং উৎপাদন অব্যাহত থাকার কারণে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে এখনো দৃঢ় রয়েছে। বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজের মাধ্যমে ব্যবসা ও উৎপাদন সচল থেকেছে, সকলেই প্রণোদনা পেয়েছে। তিনি কস্ট অডিট বাস্তবায়নে দ্রুত উদ্যোগ নেওয়ার আশ্বাস দেন। তিনি সিএমএ পেশাদারগণের প্রতি ন্যায়পরায়ণতা এবং জাতীয় অর্থনীতির উন্নয়নের জন্য প্রতিশ্রুতি বজায় রেখে কাজ করার আহবান জানান।

বিশেষ অতিথি এ কে এম দেলোয়ার হোসেন এফসিএমএ কস্ট অডিট বাস্তবায়নের মাধ্যমে জাতীয় অর্থনীতির কতটা উন্নয়ন হতে পারে, এ বিষয়ে প্রধান অতিথিকে অবহিত করেন। সিএমএ পেশাদারগণ যেন তাদের অধিকার এবং কাজের সুযোগ সমভাবে পান এবং রাষ্ট্রীয় কাজে আরও বেশি সম্পৃক্ত হতে পারেন, সে বিষয়ে সুযোগ প্রদানের জন্য তিনি প্রধান অতিথির দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

আইসিএমএবি প্রেসিডেন্ট মোঃ জসিম উদ্দিন আকন্দ এফসিএমএ তাঁর বক্তব্যে কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টিং পেশা এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ খাতে এর প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন। ইনস্টিটিউটের পক্ষ থেকে তিনি সরকারি নির্দেশনা অনুসারে সকল লিমিটেড কোম্পানিতে কস্ট অডিট বাধ্যতামূলক করার বিষয়টি যথোপযুক্তভাবে প্রয়োগ করার মাধ্যমে জাতীয় অর্থনীতির উন্নয়নের জন্য প্রধান অতিথির দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। সিএমএ পেশাদারগণের জন্য কাজের সুযোগ আরও বিস্তৃত করার, যাতে করে তারা জাতীয় অর্থনৈতিক উন্নয়নে পেশাগত দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন, এ জন্য তিনি বাণিজ্য সচিবের কাছে যথাযথ সহায়তার আবেদন জানান।

মোঃ শহিদ এফসিএমএ ‘ট্রিটমেন্ট অব ভ্যারিয়াস আইটেমস অব কস্ট ইন লাইট অব দ্য কোভিড-১৯’ শিরোনামে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এ প্রবন্ধ উপস্থাপনের বিষয়ে আলোচনা ও পর্যবেক্ষণ জানান আবুল বশির খান এফসিএমএ।

আইসিএমএবি’র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোঃ মামুনুর রশীদ এফসিএমএ অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। সঞ্চালনার পাশাপাশি তিনি নিজ বক্তব্যে কস্ট অব গুডস সোল্ড স্টেটমেন্ট সিএমএ পেশাদারদের মাধ্যমে নিশ্চিতকরণ এবং তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানে ইন্ডিপেন্ডেন্ট ডিরেক্টর প্যানেলে পেশাদার কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টগণকে সম্পৃক্ত করাসহ গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয় তুলে ধরেন। আইসিএমএবি’র সেক্রেটারি মোঃ মনিরুল ইসলাম এফসিএমএ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন। আইসিএমএবি’ভাইস প্রেসিডেন্ট আবু বকর সিদ্দিক এফসিএমএ অনুষ্ঠানে সম্মানিত অংশগ্রহণকারীদের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

(এসএএম/১৭ নভেম্বর ২০২০)

Short URL: https://biniyougbarta.com/?p=128922

সর্বশেষ খবর