Responsive image

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের অভিযানে ৬৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিনিয়োগবার্তা: পবিত্র রমজান ও সরকারি বিধিনিষেধকালে (লকডাউন) নিত্যপণ্যের দাম স্থিতিশীল রাখতে ছুটির দিনে রাজধানী ও জেলা-উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন বাজারে অভিযান পরিচালনা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। এতে ঢাকাসহ সারা দেশে ভোক্তাস্বার্থ বিরোধী বিভিন্ন অপরাধে ৩৫টি মনিটরিং টিম কর্তৃক ৬৩টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে মোট ২ লাখ ২১ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল)  দিনব্যাপী সারাদেশে এসব অভিযান পরিচালনা করে ভোক্তা অধিকার  অধিদফতর।

অধিদফতরের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছ।

এতে বলা হয়, ঢাকা মহানগরীতে ৭টি মনিটরিং টিম কর্তৃক ১২টি বিভিন্ন পাইকারি ও খুচরা বাজারে তদারকি করা হয়। রাজধানীর এ সকল বাজারে অভিযান পরিচালনা করেন প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. মাসুম আরেফিন, উপ-পরিচালক বিকাশ চন্দ্র দাস ও ঢাকা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মন্ডল।

এছাড়া বাণিজ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক পরিচালিত মোবাইল টিমের সাথে বাজার তদারকি করেন অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক প্রনব কুমার প্রামানিক, ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক রোজিনা সুলতানা, সহকারী পরিচালক মাগফুর রহমান ও সহকারী পরিচালক মাহমুদা আক্তার।

এছাড়া রাজধানীর বাইরে বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক ও জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালকদের নেতৃত্বে জেলা উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন বাজারে তদারকি ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

রাজধানীর মিরপুর শাহ আলী, মিরপুর ৬নং বাজার, মিরপুর -১০, মোহাম্মদপুর টাউনহল, খিলগাঁও তালতলা, খিলগাঁও রেলগেট, বাসাবো,বনানী, কচুখেত, ভাসানটেক, নেভী বাজার, মিরপুর-১৪ এলাকার বিভিন্ন কাঁচাবাজার, নিত্যপণ্যের দোকান, সুপারশপ ও ফার্মেসিতে তদারকিকালে সবজি, পেঁয়াজ, ছোলা,ডাল, ভোজ্যতেল, চিনি, খেজুরসহ অন্যান্য নিত্যপণ্য যৌক্তিকমূল্যে বিক্রয় হচ্ছে কিনা তা তদারকি করা হয়।

একইসাথে সংশ্লিষ্ট ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে মূল্য তালিকা সঠিকভাবে প্রদর্শন, নির্ধারিত দামে পণ্য বিক্রয়, পণ্যের ক্রয় রসিদ সংরক্ষণ, মূল্য তালিকায় প্রদর্শিত মূল্যের সাথে বিক্রয় রসিদের গরমিল, সঠিক ওজন, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য ও ওষুধ, নকল পণ্যসহ ভোক্তাস্বার্থ বিরোধী কোনো অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ করা হয়।

তদারকিকালে বাজারে নিত্যপণ্যের পর্যাপ্ত মজুত, সরবরাহ স্বাভাবিক ও পণ্যমূল্য স্থিতিশীল পরিলক্ষিত হয় এবং সরকার নির্ধারিত দামে ভোজ্যতেল, পেঁয়াজ, ছোলা, ডাল, চিনিসহ অন্যান্য নিত্যপণ্য বিক্রি হতে দেখা যায়।

এ সময় পণ্যের মূল্যতালিকা প্রদর্শন না করা ও নির্ধারিত দামের চেয়ে বেশী দামে পণ্য বিক্রয়ের অপরাধে কয়েকটি নিত্যপণ্যের দোকানকে জরিমানা আরোপ করা হয় এবং এ ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড হতে বিরত থাকার জন্য সতর্ক করা হয়।

আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, স্বাস্থ্য বিভাগ, কৃষি বিভাগ, মৎস্য বিভাগ, ক্যাবসহ সংশ্লিষ্ট শিল্প ও বণিক সমিতির প্রতিনিধিবৃন্দ অধিদফতর পরিচালিত বাজার অভিযানে সহযোগিতা প্রদান করেন।

বাজার তদারকিকালে ভোক্তা অধিকার বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ভোক্তা ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে লিফলেট, প্যাম্পলেট বিতরণ এবং করোনাকালে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি পরিপালনের জন্য হ্যান্ডমাইকে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেয়া হয়।

এছাড়াও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার নিশ্চিতকরণসহ স্থিতিশীল বাজার ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন।

অধিদফতরের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহা বলেন, পবিত্র রমজান ও মহামারীকালে নিত্যপণ্যের মূল্য স্থিতিশীল রাখতে সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও অধিদফতরের বাজার তদারকি ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। ভোক্তা স্বার্থ সুরক্ষায় নিত্যপণ্যের মূল্য তালিকা প্রদর্শন,ক্রয় রশিদ সংরক্ষণ এবং যৌক্তিক ও ন্যায্যমূল্যে নিত্যপণ্য বিক্রয় করতে ব্যবসায়ীদের আহ্বান জানান তিনি।

(এসএএম/২৪ এপ্রিল ২০২১)

Short URL: https://biniyougbarta.com/?p=142848

সর্বশেষ খবর