Responsive image

সপ্তাহের ব্যবধানে সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিনিয়োগবার্তা: সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের ব্যবধানে মূল্যসূচকের বড় পতন হয়েছে। তবে আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইতে টাকার অংকে লেনদেনের পরিমাণ বেড়েছে। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্যসূচক ও লেনদেন দুটোই কমেছে।

ডিএসই ও সিএসইর সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইতে ৪ হাজার ৮৬ কোটি ১২ লাখ ৬৪ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৩ হাজার ৭৫২ কোটি ৪২ লাখ ৪২ হাজার ৫ শত টাকার শেয়ার। এ হিসেবে সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৩৩৩ কোটি ৭০ লাখ ২১ হাজার ৬৮০ টাকা বা ৮ দশমিক ৮৯ শতাংশ।

সপ্তাহ শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স এর অবস্থান দাঁড়ায় ৫ হাজার ৪৮৫ দশমিক ০২ পয়েন্ট। সপ্তাহের শুরুতে সূচকটির অবস্থান ছিল ৫ হাজার ৬৪৭ দশমিক ৬৭ পয়েন্ট। এ হিসেবে সপ্তাহের ব্যবধানে সূচক কমেছে ১৬২ দশমিক ৬৫ পয়েন্ট বা ২ দশমিক ৮৮ শতাংশ।

ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসই-৩০ সপ্তাহের ব্যবধানে ২ হাজার ১৭৩ দশমিক ৭৪ পয়েন্ট থেকে ২ হাজার ১১০ দশমিক ৭০ পয়েন্টে কমে আসে।

আর ডিএসই শরীয়াহ সূচক ডিএসইএস সপ্তাহের ব্যবধানে ১ হাজার ২৬১ দশমিক ৩০ পয়েন্ট থেকে ১ হাজার ২৩৬ দশমিক ৩৩ পয়েন্টে কমে আসে।

আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসইতে ৩৭০ টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ২৪ টি কোম্পানির। আর দাম কমেছে ২৫২ টি কোম্পানির। এ সময়ে ৯১ টি কোম্পানির শেয়ারের দাম ছিল অপরিবর্তিত। আর ৩ টি কোম্পানির শেয়ারের লেনদেন হয়নি।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) আলোচ্য সপ্তাহে ২৪৭ কোটি ৪৯ লাখ ৮৪ হাজার ১৯২ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের সপ্তাহে ২৮৯ কোটি ৯০ লক্ষ ১৫ হাজার ৯৭৪ টাকার লেনদেন হয়। আলোচ্য সপ্তাহে সিএসইতে লেনদেন কমেছে ৪২ কোটি ৪০ লাখ ৩১ হাজার ৭৮২ টাকা।

আর সপ্তাহ শেষে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই কমেছে ৪৪৭ দশমিক ১৭ পয়েন্ট বা ২ দশমিক ৭৩ শতাংশ।

আলোচ্য সপ্তাহে সিএসইতে ৩০১ টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ২৭ টির, দাম কমেছে ২০৩ টি কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৭১ টি শেয়ারের দাম।

(ডিএফই/১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১)

Short URL: https://biniyougbarta.com/?p=137391

সর্বশেষ খবর